January 28, 2021

Marmakutir

এবার হোক কিছু মনের কথা বলা

ঝুলন গোস্বামী, দশকের সেরা টিমের সদস্য, বাঙালির কাছে ব্রাত্য

Spread the love

২৭ সে ডিসেম্বর আইসিসি তাদের দশকের সেরা ক্রিকেট টিমের সদস্যদের নাম ঘোষণা করেছে। মহিলা এক দিনের ক্রিকেট টিমে সেখানে ভারত থেকে জায়গা করে নিয়েছেন মিতালি রাজ ও ঝুলন গোস্বামী । ঝুলন গোস্বামী ২০১৮ সালে অবসর ঘোষণা করলেও , আইসিসির দিশকের সেরা টিমে তার জায়গা বুঝিয়ে দিল, তিনি ঠিক কত বড় মাপের ক্রিকেটার ছিলেন। চাকদহের মেয়ে ঝুলন ১৫ বছর বয়েসে ক্রিকেটকে নিজের লক্ষ্য বানিয়ে নেন। ১৯৯২ এর বিশ্বকাপ দেখেই ক্রিকেটের প্রতি তার ভালবাসা জাগে। ১৯৯৭ সালে মহিলা বিশ্বকাপে বেলিন্ডা ক্লার্কের খেলা দেখে তিনি মুগ্ধ হন ও ক্রিকেটে ভারতের হয়ে খেলার স্বপ্ন দেখেন। প্রথমে বাংলার টিম পরে ২০০২ সালে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারতের হয়ে প্রথম ম্যাচ খেলেন। পরবর্তীতে মিতালি রাজ ও ঝুলন গোস্বামী ভারতীয় মহিলা ক্রিকেটকে এগিয়ে নয়ে জেতে সাহায্য করেন। ২০০৬-০৭ এর টেস্ট সিরিজে নাইট ওয়াচম্যান হিসেবে ৫০ রান করেন ও পর পর দুটি টেস্টে যথাক্রমে ১০ ও ৫ উইকেট নিয়ে ভারতকে টেস্ট জিততে সাহায্য করে। ২০০৮ সালে তিনি ভারতীয় টিমের ক্যাপ্টেনও হন। তিনি প্রথম মহিলা ক্রিকেটার হিসেবে এক দিনের ক্রিকেটে ২০০ উইকেট নেন এবং সব ফরম্যাট মিলিয়ে ৩০০ এর বেশি উইকেট তার সংগ্রহে। ২০০৭ সালে তিনি আইসিসি বর্ষসেরা মহিলা ক্রিকেটার হন। ২০১০ সালে তিনি অর্জুন পুরস্কার পান ও ২০১২ সালে তিনি পদ্মশ্রী পান। 

শুরুতে চাকদহ থেকে ট্রেনে করে কলকাতা এসে ক্রিকেটের অনুশীলন করা থেকে যে গল্পের শুরু, তা শেষ হয় এই গ্রহের সর্বচ্চ উইকেট শিকারি হিসেবে। কিন্তু বাঙালিকি কখনো সেই দাম দিয়েছে? কোন পুরুষ ক্রিকেটার এই কীর্তি স্থাপন করলে যে পরিমান হইচই হত, তা কি ঝুলনের সাথে হয়েছে? বিতর্ক চলতেই থাকবে। কারন দশকের সেরা টিমে ধোনি বা কহলির থাকা নিয়ে সামাজিক মাধ্যমে যতটা হইচই, মিতালি রাজ বা ঝুলনকে নিয়ে তা খুঁজে পাওয়া যায় না। কিন্তু কৃতিত্বে এরা কোনভাবেই পিছিয়ে নেই।