অপ্রেম

0
345

দীর্ঘশ্বাসের তীব্রতা নিশ্বাসের চেয়েও স্পষ্ট,
একলা রাত কিছুটা ঐ ইনসোমনিয়ার মতোই
তার মাঝে তোমার আমার প্রেমটা আজও
বাঁধনছাড়া, আলগা কিন্তু ঠুনকো নয়।

দূরত্ব নিছকই ফিরে তাকানোর জন্য
সাহস নিশ্চয়ই ঘুরে দাঁড়ানোর জন্য
তবে প্রেম কেন অনিশ্চিত!
তাও আমি এক নাছোড়বান্দা প্রেমিক…

যার কবিতা-গান-উপন্যাস গুলো
তোমার ওই ছন্নছাড়া মনকে নিয়েই লেখা,
জানিনা সেগুলো কবে মন পাড়ায়
নতুন ডাকনামে সাড়া পাবে!

তাও সম্পর্ক জুড়ে আগলে বাঁচা
সংসার আসলে মায়ায় আঁকা
মুঠো যতোই আলগা হবে
বাঁধনে ততোই জড়িয়ে যাবে,

সত্য-মিথ্যা যেন ধ্রুবক
ভুল-ঠিক আসলে আপেক্ষিক
সবকিছু একই মনে হলেও
ধাঁধা টা কয়েনের এপিঠ ওপিঠ।

পুড়িয়ে ফেললেও ছাই অবশিষ্ট থাকে,
ধুয়ে ফেললেও আঘাতের চিহ্ন থাকে,
মুছে ফেললেও স্মৃতির ছাপ থাকে,
বিচ্ছেদ ঘটলেও অনুভূতির রেশ থাকে।

আসলে শূন্যতা একটা খামতি
বিস্ময়ে যার প্রাপ্তি
রাত্রি জুড়ে কেবল আঁধার বাড়ে
নির্বাক ঠোঁট আজও দৃষ্টি কাড়ে,

বুক জুড়ে আজ কম্পন যতো
মিলিয়ে যাক সব অভিযোগ ততো
শান্ত মনে তবু ঝঞ্ঝা নামে
নিস্তব্ধতা যার শিরোনামে।

চুমুর থেকেও নরম কেন?
ভেঙে যাওয়া ঐ মনটা!
শাস্তির চেয়েও কঠিন কেন?
অপেক্ষা করার ঐ সময়টা!

তাও শব্দফেরত শব্দ সকল
তোমার যত্নে পায় ঠাঁই
ফিরতি বিকেল হাঁটলে পাশে
হাতের উপর হাত টা পাই;

হুমড়ি খাওয়া কবিতা যদি
কপাল ছুঁয়ে আদর স্পর্শে,
গভীর রাতে চুম্বন কেন
ঘুম পাড়ানি গল্পে মাতে?

ছন্দকেশে সাজানো জুঁই
মিষ্টি গন্ধে খোঁপায় বাঁচে
মেঘলামন অস্থির চোখে
কাজল মেশায় মায়ার আঁচে

নির্জন টিপে কপালখানি
প্রথম চুমুর বার্তা আঁকে
ঠোঁটের কোলে আলতো হাসি
স্পর্শ খোঁজে ঐ লিপস্টিক শেডের গভীর বাঁকে

তবে দূরে কেন তুমি
অজুহাত ঠেলে সামনে এসো
নতুন সকল গল্প মাঝে
আবদার নিয়ে সামলে বসো

ছুঁড়ে দাও সব অভিমান
মিটিয়ে নাও রাগের মেলা
খুঁজে ফিরে আসা যাওয়া
মিলিয়ে যাক জড়িয়ে থাকায়

ভুল থাকা সব অঙ্কে
উত্তর কখনো মিলে না!
ভালোবাসা যদি দু তরফা হয়
তবে সম্মতি কেন পায় না?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here