নিভে যাচ্ছে ঐতিহ্যের আলো।  পুরোনো কলকাতার আটপৌরে নস্টালজিয়াকে পেছনে শহর এগিয়ে যাচ্ছে ঝাচকচকে চোখ ধাধানো মাল্টিপ্লেক্সের আলোর দিকে। কলকাতার অলিতে গলিতে নিভে যাওয়া টিমটিমে আলোর মতই নিভে যাচ্ছে কলকাতার প্রায় এক সতাব্দি পার করে আশা সিঙ্গেল স্ক্রীন থিয়েটার গুলি।

২০১৯ এই বন্ধ হয়ে গেছিল কলকাতার ঐতিহ্যবাহি সিনেমা হল মিত্রা। আজ সেই নাটকের জবনিকা পতন ঘটল, পুরোপুরি রূপে হলটি বিক্রি হয়ে যাওয়ার মাধ্যমে।.



মিত্রা ছিল একটি একক পর্দার থিয়েটার, মিনার সিনেমা হলের বিপরীতে কলকাতা, হাতিবাগান, বিধান সরণীতে অবস্থিত। ১৯১৩ সালে উত্তম কুমার অভিনীত দেনা পাওনার চিত্রনাট্য দিয়ে বীরেন্দ্রনাথ সরকারের অধীনে “চিত্রা সিনেমা” নামে অভিযান শুরু হয়েছিল। হেমন্ত কৃষ্ণ মিত্র দখল করার সময় থিয়েটারটির নামকরণ হয় মিত্রা । থিয়েটারটি 88 বছর পরে ব্যবসায়ের জন্য বন্ধ যায়।

তাহলে বাঙালি কি সত্যিসত্যিই ভুলে গেছে ঐতিহ্যের টান? নাকি গ্ল্যামারের কাছে হেরে যাচ্ছে বাঙালির ইতিহাস, ঐতিহ্যের যৌলুস।

ঈশানী ধর

#cinemaHall #bengaliCinemaIndisury

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here