দেশপ্রেম, কথাটা কানে শুনলেই আমাদের মনে ভেসে ওঠে পরাধীন ভারতের বিপ্লবীদের ছবি। বা “এ মেরে বাতান কি লোগো” গান, বা বর্ডারের সানি দেওল বা কার্গিল যুদ্ধের সেনা দের ছবি। একটু কেমন লাগলো আগের বাক্যটা পড়ে? সানি দেওল আর সেনা এক স্থানে দেখে? মনে হচ্ছে এটা একটা লাইনকে মুখরোচক বানিয়ে দিচ্ছে? শুধু মাত্র বিনোদনের জন্য আমি দেশপ্রেম কথাটাকে ছোট করছি? যদি সেটা মনে হয় থাকে, তাহলে বলব একটু ধৈর্য ধরুন। কারন আজকের প্রতিবেদন যে বিষয়কে কেন্দ্র করে সেটা হল, দেশপ্রেম নিয়ে সস্তার বিনোদন।

বেশ কয়েকমাস হয়ে গেল টিকটক ভারতে নিষিদ্ধ। কিন্তু তাতে কি? না দশ পনেরো মিনিটের তথাকথিত “কন্টেন্ট” বানানো থেমেছে, না বিভিন্ন অ্যাপ কোম্পানি গুলোর কোন লোকসান হয়েছে। আগে যেখানে শুধু টিকটক ছিল এখন সেখানে এসেছে ইনস্টাগ্রাম রীল, এম এক্স টাকাটক। আর সেখানেই বাড়ছে দেশপ্রেম নিয়ে সস্তার বিনোদন। কেও সামান্য জিমে ব্যম করছেন তো পিছনে তেরঙ্গা লাগানো, আর সাথে “ইন্ডিয়ান আর্মি” গান। কেও রাস্তায় দৌড়াচ্ছে তো তার সাথে ওই গান।

 

কেও কোন ডিগবাজি খেয়ে ভেলকি দেকাচ্ছে সেখানে হতে পতাকা নিয়ে দেশাত্মবোধক গান। কেও সামান্য পাঁচিল থেকে ডিগবাজি খেয়ে লাফ মারছে তো বুকে পতাকা নিয়ে দেশাত্মবোধক গান। এদের মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় হল ইন্ডিয়ান আর্মিকে সম্বোধন করে সস্তার একটি পাঞ্জাবি গান। ইন্ডিয়ান আর্মিকে নিয়ে সিনেমা ভিডিও এর আগেও হয়েছে। কোথাও আর্মিকে ভালো দেখিয়েছে তো অল্প কোথাও তাকে খারাপ। কিন্তু সেটা গল্পের খাতিরে। কিন্তু এই শর্ট ভিডিও প্ল্যাটফর্মে যা হয়, টা সস্তার প্রচার ছাড়া কিছু না। কারন এ দেশে সেনাবাহিনী শুধু দেশ রক্ষায় কাজে লাগে না।

 

রাজনীতি, সিনেমা, ব্যাক্তিগত উন্নতি সবেতেই কাজ। ফলোয়ার বাড়াতে হলে আর্মি নিয়ে ভিডিও করো, নায়ক হিসেবে কেরিয়ার বানাতে হবে, একটা আর্মি সিনেমা করে নাও, রাজনীতি করতে হবে? তাহলে আর্মি কে পুজো কারো  । এই প্রথা চলতেই থাকবে। কিন্তু সবার আগে বুঝতে হবে সেনাবাহিনী দেশের একটি গুরুত্বপূর্ণ সরকারি প্রতিষ্ঠান। তার যথাযথ সম্মান প্রাপ্ত। তাই এই ব্যাপারে সরকার না হোক, অন্তত অ্যাপগুলোর একটু নজর রাখা দরকার। নারী নির্যাতনের, অবাধ যৌনতা, শিশু নির্যাতন এত দিন শুধু এগুলোতেই ছার ছিল এই অ্যাপগুলো তে। এবার সেখানে দেশের প্রতিষ্ঠান ও ঢুকে গেছে। আপনার কি এখন খারাপ লাগছে? তাহলে নিজের জন্যও একটু খারাপ লাগেনি , কারন আমি আপনি এই ভিডিওগুলো শুধু দেখি না।, ফলো অব্দি করি।

 

ByRajat Saha

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here